সোনারগাঁ প্রতিনিধি : সোনারগাঁয়ে আওয়ামী লীগ মনোনিত মো. মোশারফ হোসেন ও বিদ্রোহী প্রার্থী মাহফুজুর রহমান কালাম সমর্থকদের মধ্যে ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার (১৫ মার্চ) সন্ধ্যায় তালতলা এলাকায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হয়েছে। আহতদের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ঘটনার পর উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার তালতলা এলাকায় জামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোশারফ হোসেনের পক্ষে একটি সভা চলছিল। এ সময় বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থক তাইজুল ইসলামের নেতৃত্বে রফিকুল ইসলাম, সামসুল, আলীজান, আজিজুল রনি, দেওয়ান কামাল, স্বপন, দুলাল, শাহ আলম, আব্দুন নূর, মোতালেব ও ওসামানসহ ২০-৩০ জনের একটি দল উষ্কানী দিয়ে স্লেগান দিতে দিতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে যায়।

এ সময় উভয় পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন লাঠিসোটা, লোহার রড, হকিস্টিক, ক্রিকেটের স্ট্যাম্প নিয়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

সংঘর্ষে মিজান, মহসিন, তাইজউদ্দিন, বাবু, জাকির, রমজান আহত হয়। আহতদের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সহ স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সোনারগাঁ থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) পঙ্কজ জানান, তালতলা এলাকায় আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হয়েছে। আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৪ মার্চ সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে এসে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোশারফ হোসেন ও বিদ্রোহী প্রার্থী মাহফুজুর রহমান কালামের সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় উভয় পক্ষ পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেন এবং একে অপরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করেন। মোশারফ হোসেন সোনারগাঁ উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি। অন্যদিকে মাহফুজুর রহমান কালাম সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক।