নারায়ণগঞ্জ৭১: স্বৈরাচার এরশাদ সরকার পতন আন্দোলনে অন্যতমদের একজন, বিশিষ্ট ছড়াকার ও সাংবাদিক ইউসুফ আলীর এটমের আজ ৬৫তম জন্মদিন। ১৯৫৫ সালের ৪ জুলাই নারায়ণগঞ্জে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা প্রয়াত আলহাজ্ব সাদত আলী মাস্টার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। তাঁর হাতে গড়া নারায়ণগঞ্জের অনেক ছাত্রছাত্রী স্ব-স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত।সফল ও স্বার্থক কবি
সাংবাদিক ইউসুফ আলীর এটমের জন্মদিনে তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে মহান আল্লাহ রাব্বুল আল আমিনের দরবারে তার সুস্থতা- দীঘায়ু কামনা করেছেন, দৈনিক স্বাধীন বাংলাদেশ পত্রিকা ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল নারায়ণগঞ্জ ৭১.কম পরিবার সহ বাংলাধেম ফটো জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের জেলা প্রেসিডেন্ট শৈখ মাহমুদ হাসান কচি।

ইউসুফ আলী এটম নারায়ণগঞ্জ শহরের মিশনপাড়া এলাকার চাষাঢ়া প্রাথমিক বিদ্যালয় (তৎকালীন রামকানাই প্রাইমারী স্কুল) থেকে বৃত্তিসহ পঞ্চম শ্রেণি, নারায়ণগঞ্জ হাই স্কুল থেকে প্রথম বিভাগে এসএসসি, তোলারাম কলেজ থেকে প্রথম বিভাগে এইচএসসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দ্বিতীয় শ্রেণিতে বিএ (অনার্স) ও এমএ ডিগ্রি লাভ করেন। কলেজ জীবন থেকেই তিনি লেখালেখি ও সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়ান।

তোলারাম কলেজে পড়ার সময় তিনি বিজ্ঞান পরিষদের জিএস নির্বাচিত হন। বাকশাল গঠনের পর তার নেতৃত্বে তোলারাম কলেজে জাতীয় ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় কমিটিকে সংবর্ধনা দেয়া হয়।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় তিনি দেশ বিদেশে আলোড়ন সৃষ্টিকারী ‘এ লাশ আমরা রাখব কোথায়’ সংকলন প্রকাশের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন। নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রয়াত প্রথাবিরোধী লেখক ওয়াহিদ রেজা এবং ইউসুফ আলী এটম,এ দু’জনের লেখা স্থান পেয়েছিলো ওই সংকলনে।

পরবর্তীতে নারায়ণগঞ্জ থেকে ‘পৃথিবীর কাছে নোটিশ’ সংকলন প্রকাশের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে তাকে একদিনের কারাবাসে যেতে হয়েছিলো। তার লেখা প্রথম ছড়াগ্রন্থ ‘চুপ’ পাঠক সমাজে দারুণ সাড়া জাগিয়েছে।

উল্লেখ্য যে, স্বৈরাচার ্এরশাদ সরকার পতন আন্দোলনকালে কবি ইউসুফ আলী এটম এর কবিতা দেশে তুমুল আলোড়নের সৃষ্টি করেছিলো। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা তার লেখা কবিতার কারণে উৎসাহিত হয়ে আন্দোলনকে আরো রেগবান করে সফল হয়েছিলো।