নারায়ণগঞ্জ৭১: মানুষ মানুষের জন্য আর জীবন জীবন জীবনের জন্য এই অমীয় বানীকে বুকে ধারন করে হাজী মিছির আলী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের শিক্ষার্থীরা কুড়িগ্রামের বন্যাকবলিত অসহায় নিরন্ন মানুষের মুখে একচিলতে হাসি ফোটানোর জন্য সাহায্যের হাত সম্প্রসারিত করে দিয়েছে।

কুড়িগ্রাম চিলমারী উপজেলার রমনা ষ্টেশন রাজারভিটা গ্রামের বন্যাকবলিত অসহায় ও নিরন্ন ৫ শতাধিক পরিবারের প্রায় আড়াই হাজার মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী হিসেবে চাল,ডাল,তেল,সুজি,আটা,ময়দা,লবন ও শুকনা খাবার চিড়া,মুড়ি,বিস্কুট ও গুড় বিতরন করেছে।

পাশাপাশি মেডিকেল টিমের মাধ্যমে বন্যাকবলিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত মানুষের মাঝে অষুধ পত্র ও ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছে।

হাজী মিছির আলী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যাপক আবু খালেদ মোঃ রায়হান,মোঃ সাইফুর রহমানের নেতৃত্বে কলেজের প্রাক্তন,  বতমান ও রোভার স্কাউটের সদস্য মোঃ জান্নাতুল নাঈম,মোঃ সোহেল পাটওয়ারী,মোঃ ইমরাজ আহসান,মোঃ ইয়াসিন, মোঃ মেহেদী, মোঃ সৈকত,মোঃ সাব্বির,মোঃ রাব্বী মিয়া সহ ১৫ সদস্যের একটি টিম এ কাযক্রম পরিচালনা করে।

বন্যাকবলিত এলাকার অসহায় ও নিরন্ন মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ কালে সবাত্নক সহযোগিতার হাত বাড়ান কুড়িগ্রাম চিলমারী উপজেলা নিরবাহী কমকর্তা শাহ মোঃ আব্দুল জোহা।

শান্তিপূর্ণ ভাবে বন্যাকবলিত অসহায় ও নিরন্ন মানুষের মাঝে ত্রান বিতরণ কমসুচী পালন করতে পেরে কলেজের অধ্যক্ষ প্রশান্ত কুমার দাস,কলেজের দাতা সদস্য ও কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ মনিরুল আলম সেন্টু,কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্য আলহাজ্ব মোঃ ফজলুল হক,নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম,খুলনা জেলা এল জি আর ডি মন্ত্রনালয়ের সুবিধাদি  মোঃ ইকবাল হোসেন সহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন শিক্ষার্থীরা।