নারায়ণগঞ্জ৭১: ঈদুল আজহার কোরবানির সব কার্যক্রম শেষ হবার পর বর্জ্য অপসারণের কাজে নেমেছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) একাধিক টিম। নাসিকের স্বাস্থ বিভাগের অফিসার হিরণের নেতৃত্বে একদল পরিস্কার পরিছন্নকর্মী নাসিকের আওতাধীন এলাকা গুলোতে অভিযান চালাচ্ছে।

সোমবার (১২ আগস্ট) বিকাল ৪ টার পর থেকেই হিরণ বাহিনী পরিস্কার পরিছন্নকর্মী নাসিকের আওতাধীন এলাকা গুলোতে কোরবাণীকৃত গরু গুলোর রক্ত সহ ফেলে দেয়া বিভিন্ন অংশগুলো প্রতিটি এলাকার স্পট গুলো থেকে তুলে নিয়ে যাবে তাদের নিজস্ব পরিবহনে করে নির্দিষ্টস্থানে ফেলতে এরপর আরেক দল কর্মী পানি দিয়ে রক্ত জমাট স্থানটি পরিস্কারের কজে নিয়োজিত হবে এরপর আরেক গ্রুপ ব্লিচিং পাউডার পর্যাপ্ত পরিমান ছিটিয়ে দিবে।এসব কাজের জন্য কাউকে কোন খরচ দিতে হবে না কারণ এটা নাসিকের একটি র্নিধারিত কাজ।নাসিক মেয়র ডা.সেলিনা হায়াত আইভির র্নিদেশেই মাঠে নেমেছেন নাসিক বাসীর সেবার জন্য।

 অপরদিকে নাসিকের পরিচ্ছন্ন কর্মীদের দিয়ে ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে পরিচ্ছন্ন কাজ করাচ্ছেন কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে ওয়ার্ডের প্রতিটি মহল্লায় তিনি এ পরিচ্ছন্নতা ও বর্জ্য অপসারণের কাজ করছেন।

কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম জানান, কোরবানির পশুর বর্জ্য আমার ওয়ার্ডের সব মহল্লা থেকে বিকেলের মধ্যে অপসারণ করে ব্লিচিং পাউডার ছিটিয়ে দেওয়া হবে। এছাড়া কোরবানির পর ছিটানোর জন্য বাড়ি বাড়ি ব্লিচিং পাউডার বিতরণ করা হয়েছে।