নারায়ণগঞ্জ৭১: এমপি মুক্তিযোদ্ধা একেএম সেলিম ওসমান বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্য আজকে আমরা পতাকা আকঁতে পেরেছি স্বাধীন হতে পেরেছি । তিনি দেশের দায়িত্ব নিয়েছেন তোমরা নারায়ণগঞ্জের দায়িত্ব নাও। আমি চেষ্টা করবো এই স্কুলটাকে স্কুল এবং কলেজ হিসেবে সম্পন্ন করার জন্য। আমার গুরু আনোয়ার হোসেন তিনি এখানে দায়িত্বপ্রাপ্ত রয়েছেন এবং আগামীতেও থাকবেন তাঁর কাছে আমি দায়িত্ব দিয়ে যাবো। আনোয়ার ভাইয়ের কাছে অনুরোধ করি যেন তোমাদের সাথে বসে তোমাদের কথা শুনে। পরিবেশ মিষ্টি করতে হবে, মানুষ যত ভালো পরিবেশ পাবে তত বেশি মনোযোগ দিবে। আলোচনা করতে কোন লজ্জা নেই, আলোচনা হবে আত্মসমালোচনা। আমাদের আশেপাশের জায়গা নিয়ে গেছে আমাদের তো কিছু হয়নি। আমরা চেষ্টা করবো আমাদের আরেকটা বিল্ডিং করার জন্য। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে তোমরা সোনার বাংলা গড়বে এটিই আমাদের চাওয়া।

বৃহস্পতিবার ১৫ আগষ্ট বেলা ১টায় নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগে মর্গ্যাণ গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের আয়োজনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মিলাদ ও আলোচনা সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মর্গ্যাণ গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভনিংবডির চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ চেম্বারের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, গভর্নিংবডি দাতা সদস্য এস এম আহসান হাবিব, অভিভাবক সদস্য সুনয়ন আহম্মেদ সুপন, মোশাররফ হোসেন জনি অধ্যক্ষ অশোক কুমার প্রমুখ।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেছেন, আজকে জাতির পিতার জন্য আমরা প্রত্যেকে যে যার যার স্থান থেকে দোয়া করবো। আমি সকলের কাছে তার ও তার পরিবারের জন্য দোয়া চাই।