নারায়ণগঞ্জ ৭১: আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অনিয়ম দূর্নীতির বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স অবস্থানে রয়েছে। অন্যায় অনিয়ম যেই করুক কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। বাংলাদেশে এই প্রথম ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশের অন্য কোন রাজনৈতিক দলে এ ধরনের নজির নেই। ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আগামীতে একটি সুষ্ঠু সুন্দর সম্মেলন করার জন্য প্রস্তুতি নিবেন। ছাত্রলীগের পুরো বিষয়টি বর্তমানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেখছেন। রোববার দুপুর ১২টায় নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় ভুলতা ফ্লাইওভার পরিদর্শন করতে এসে গণমাধ্যমকে এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে এই প্রথম শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নজিরবিহীন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হলো। তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে এবং বাধ্যতামূলক পদত্যাগ করানো হয়েছে।
মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, প্রধানমন্ত্রী ও দলের সভাপতি শেখ হাসিনা নিজেই ছাত্রলীগের বর্তমান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও দেখভাল করছেন। ছাত্রলীগের পরবর্তী সম্মেলন সম্পন্ন করতে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে তিনি দায়িত্ব দিয়েছেন। এর আগে সেতুমন্ত্রী নবনির্মিত ভুলতা ফ্লাইওভারের বিভিন্ন অংশ ঘুরে দেখেন।

ফ্লাইওভার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ৩শ ৭৫ কোটি টাকা ব্যয়ে চার লেনবিশিষ্ট ভুলতা ফ্লাইওভারটি নির্মান করা হয়েছে। যানজট নিরসন ও জনদূর্ভোগ কমাতে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগেই যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সময় সুযোগ মতো যে কোন সময় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এটি উদ্বোধন করবেন।

এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, জেলা পুলিশ সুপার হারুন-উর রশীদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম, রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান।